Science

S. Ashraf Ahmed's picture

প্রভামাছ ও আমাদের সংখ্যালঘু

***এই লেখাটি এবারের একুশে বই মেলায় প্রকাশিতব্য "জলপরি ও প্রাণপ্রভা" নামে আমার দ্বিতীয় বই থেকে উদ্ধৃত***

আমার স্বর্গীয় শিক্ষক অধ্যাপক আনোয়ারুল আজিম চৌধুরির হাত ধরে আমি এক রঙিন পৃথিবীর সন্ধান পেয়েছিলাম। তিনি বাংলাদেশের বিভিন্ন জলাশয়ের পানির নমুনা জোগাড় করতেন ছাত্রদের সাহায্যে। তা থকে আহরণ করা অসংখ্য জাতের ব্যাক্টেরিয়া আলাদা আলাদা ছোট ছোট কাঁচের বোতলে বংশ বৃদ্ধি করাতেন আলো’র শক্তি দিয়ে। শক্তি রূপান্তরের এই প্রক্রিয়াটিকে সালোক সংস্লেশন বা ফটোসিন্থেসিস বলা হয়। গাছের পাতার সবুজ ক্লোরোফিল এর পরিবর্তে এই সব ব্যাক্টেরিয়া তাদের বিভিন্ন জাতের ব্যাক্টেরিওক্লোরোফিল এর সাহায্যে সূর্যের আলো-কে খাবারে রূপান্তরিত করে থাকে।

Md. Rowshon Alam's picture

আলফ্রেড নোবেল, ডাইনামাইট ও নোবেল পুরুস্কার

আমরা অনেকেই জানি বিশিষ্ট বিজ্ঞানী আলফ্রেড নোবেলের নাম, তাঁর বেড়ে উঠা জীবন ও তাঁর ডাইনামাইট আবিষ্কারের কাহিনী। উনবিংশ শতাব্দীর বিখ্যাত এই বিজ্ঞানীর জন্মদিন ২১শে অক্টোবর। ১৮৩৩ সালের এই দিনে এই বরেণ্য বিজ্ঞানী সুইডেনের রাজধানী স্টকহোমে জন্মগ্রহন করেন। তাঁর মাতা, আন্দ্রেয়েত্তে নোবেল, ছিলেন সে সময়কার অত্যন্ত সম্পদশালী ও সম্ভ্রান্ত পরিবারের একজন মেয়ে। আর পিতা, ইমানুয়েল নোবেল, পেশায় ছিলেন একজন সফল ইঞ্জিনিয়ার ও আবিস্কারক। ইমানুয়েল নোবেল সে সময় স্টকহোমকে ঘিরে মুলত কনসট্রাকশন ইঞ্জিনিয়ার (ব্রিজ, বিল্ডিং নির্মাণ ইত্যাদি) হিসাবে কাজ করতেন।

syed shah salim ahmed's picture

উইল দ্য ওয়ার্ল্ড এন্ড ২৬ আগস্ট ২০৩২ ?

Asteroid.jpgইউক্রেনিয়ান এস্ট্রোনমার্স নিশ্চিত হয়েছেন, ১ হাজার ৩ শত ফুট ব্যাসার্ধের এস্টরয়েড ২০১৩ টিভি ১৩৫ আগামী ১৯ বছরের মধ্যে আণবিক বোমার চাইতে ভয়াবহ শক্তি নিয়ে পৃথিবীর উপর আঘাত করবে, ফলে পৃথিবী কিংবা এর একাংশ ধ্বংস হয়ে যাবে।

বুদ্ধিদীপ্ত ইউনিক চিন্তার দর্শন

কথিত আছে, মেষ পালে দলভুক্ত থাকলে সিংহ শাবক আচার আচরণে মেষ হয়ে উঠে। বয়প্রাপ্ত হলে সিংহ শাবক আর যে কারণে সিংহ হয়ে উঠতে পারে না। আপাদমস্তক মৃত্যু অবধি সিংহের রূপ নিয়ে মানসিক আচার আচরণে মেষ হয়ে একটা গোটা জীবন তাকে অতিবাহিত করতে হয়। কিন্তু সমাজ বিজ্ঞান বলে, মানুষ বুদ্ধিদীপ্ত দল ভুক্ত প্রাণী। সে মেষ কিংবা সিংহ শাবক নয়। মানুষের উত্তরণের পথ বুদ্ধিদীপ্ত এবং বেশ চমকপ্রদ। সচরাচর নয়, প্রতিনিয়ত মানুষের দল ভুক্ত প্রাণী রূপে এমনটাই হওয়া উচিত ছিল। কিন্তু মানব সভ্যতার ইতিহাসে এমনটা না হয়ে বরং হয়ে উঠল তার বিপরীতে মানুষেই মানুষের জীবন মৃত্যুর খল নায়ক।

Quazi Hassan's picture

সায়েন্স ফিকশানঃ অতঃপর ??

comp 2.jpg

চোখ দুটো পিং পং বলের মত বড় হয়ে গেছে।
ক্লান্ত চোখগুলো এর আগেও কয়েকবার বড় হয়েছিল। এবার চোখের মনিগুলো জ্বল জ্বল করছে। একটানা আঠার ঘণ্টা একইভাবে দুই জোড়া চোখ কম্পিউটারের মনিটরের দিকে তাকিয়ে আছে। না আছে খাওয়া, না আছে কোন বিশ্রাম। তাদেরকে কাজটা পারতেই হবে। না হলে কোটি কোটি টাকা বে হাত হয়ে যাবে।

Bayejid Rahman's picture

স্থানকালের মহা বিস্ফোরণের মধ্য দিয়ে সব শুরু হয়েছিল

বর্তমান প্রাকৃতিক বিজ্ঞান বলে, আজ থেকে প্রায় ১৩৭০ কোটি বছর পূর্বে স্থানকালের একটি মহা বিস্ফোরণের মাধ্যমে যাত্রা শুরু হয়েছিল আমাদের এই মহাবিশ্বের। বিস্ফোরণের মাত্র তিন মিনিটের মধ্যে মহাবিশ্বের প্রাথমিক সব গাঠনিক উপাদান তথা ইলেকট্রন, প্রোটন, নিউট্রন ও ফোটন তৈরি হয়ে যায়। প্রোটন ও নিউট্রন মিলে গঠন করে প্রধানত হাইড্রোজেন ও হিলিয়ামের নিউক্লিয়াস। ফোটন এবং ইলেকট্রন নিজেরা নিজেরা যেন এক চুক্তি করে বসে, তারা একে অপরের সাথে মিথস্ক্রিয়া করবে কেবল, অন্য কারও সাথে কভু মিলবে না। বিস্ফোরণের ৩ লক্ষ ৮০ হাজার বছর পর অবশ্য নিউক্লিয়াসগুলো ফোটনের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয় সব ইলেকট্রনকে, তাদের আবদ্ধ করে গভীর বন্ধনে, জন্ম হয় নিরপেক্ষ হাইড্রোজেন ও হিলিয়াম পরমাণুর (অন্যান্য পদার্থ যেমন লিথিয়ামের পরিমাণ ছিল নগণ্য)

Sazzad Reza's picture

দেহে পরিবর্তন হয়, মনে নয় কেন?

"O man, what has beguiled you concerning your Lord, the gracious, Who created you, fashioned you, proportioned you and put you together in whatever form He pleased!" _ Religious script

"It is not the strongest of the species that survives, nor the most intelligent, but the one most responsive to change." _ Charles Darwin

পরিবর্তনটা মুখ্য। চোখের পলকে যে বর্তমান গড়নের মানুষ সৃষ্টি হয়নি, হয়েছে বিভিন্ন ধাপ, ক্রমবিকাশ এবং পরিবর্তনের মাধ্যমে তা প্রথম উক্তি থেকে বোঝা যায়। ডারউইনও প্রাধান্য দিয়েছিলেন পরিবর্তনকে। পারিপার্শ্বিকতার বিচারে যে পরিবর্তিত হতে পারে, এগিয়ে যায় সে, বেঁচে থেকে সে-ই। বর্তমান সময়ের বিচারে প্রযুক্তির পরিবর্তনটা লক্ষণীয়। এখন তো যুদ্ধ হয় প্রযুক্তির। এখানে কেউ হয়তো বলতে পারেন, তাহলে ৮০০০ কোটি টাকা দিয়ে

Shohel.Rana's picture

আসছে স্মার্ট ফ্রিজ, থাকছে কারিশমা!!

স্মার্ট ফোনের পর এবার আসছে স্মার্ট ফ্রিজ। নতুন প্রযুক্তির কল্যাণে ইলেকট্রনিক সামগ্রী বদলে যাচ্ছে। এর কল্যাণে দৈনন্দিন জীবনে ব্যবহার্য অতি দরকারি জিনিস ফ্রিজও আসছে আরও উন্নত হয়ে। অ্যাপসের মাধ্যমে এই ফ্রিজ তার ব্যবহারকারীকে রেসিপি, শপিং তালিকা ও খাদ্যদ্রব্যের মেয়াদ ব্যবস্থাপনার সুবিধা দেবে। গতকাল সোমবার বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে এ তথ্য জানানো হয়।
টি-৯০০০ মডেলের এই ফ্রিজ বাজারে এনেছে ইলেকট্রনিকস পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান স্যামসাং। এই রেফ্রিজারেটরে ১০ ইঞ্চি ওয়াইফাই-সম্পন্ন টাচ স্ক্রিন আছে। আর আছে অ্যাপস। এই অ্যাপস ব্যবহারকারীকে রেসিপি, শপিং তালিকা, খাদ্যদ্রব্যের মেয়াদ ব্যবস্থাপনার

Shohel.Rana's picture

৩৩ হাজার বছর পর আবারও জন্ম নেবে নিয়ানডারথাল!

neanderthal_man.jpg
নিয়ানডারথাল মানুষের ডিএনএ ব্যবহার করে এখন নিয়ানডারথাল শিশু জন্মদান সম্ভব বলেই মনে করছেন যুক্তরাষ্ট্রের গবেষকেরা। গবেষকেদের ভাষ্য, জিন ক্লোনিং পদ্ধতিতে আবারও এই গুহামানব ফিরিয়ে আনা সম্ভব। তবে এ নিয়ানডারথাল শিশু জন্মদানের জন্য প্রয়োজন পড়বে একজন সাহসী মায়ের।
নিয়ানডারথাল শিশু জন্ম দেওয়ার জন্য একজন সাহসী মায়ের সন্ধান করছেন গবেষকেরা। তাঁরা আশা করছেন, নিয়ানডারথাল মানুষ নিয়ে গবেষণা ক্যানসারের মতো রোগের চিকিত্সাসহ

WatchDog's picture

আন্দাজের গোলা গোলান্দাজ। পর্ব ১। WD

Photobucket অবশেষে ঘুম ভাঙ্গল গোলান্দাজ বেপারীর। লম্বা একটা হাই তুলে এদিক ওদিক তাকাতেই বিস্ময়ে হতবাক হয়ে গেল সে। এ কোথায় এল সে! যতদূর চোখ যায় শুধু মানুষ আর মানুষ। গাড়ি-ঘোড়ার চিহ্ন নেই। মাঝে মধ্যে দু’একটা ইঞ্জিনের ভটভটি বাদ দিলে কেবলই রিক্সা আর সাইকেলের সমুদ্র।

Syndicate content