Politics

Mainul.Hossain's picture

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেট এবং বাংলাদেশের জাতীয় সত্তার সংগ্রাম

যুক্তরাষ্ট্রের সিনেটে বাংলাদেশের ওপর আনীত ৩১৮ নম্বর প্রস্তাবে রাজনৈতিক সংলাপের জরুরি প্রয়োজনীয়তার ওপর সবিশেষ জোর দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয়, সিনেট সদস্যরা বাংলাদেশের আসল সমস্যা সম্পর্কে বাস্তবসম্মত ও সুদূরপ্রসারী সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম হয়েছেন। কিন্তু এ মুহূর্তে আমরা রক্ষা পাব কীভাবে? সরকারের অস্তিত্ব বলতে গেলে নেই এবং দেশটি গৃহযুদ্ধের মতো মৃত্যু ও ধ্বংসের মোকাবিলা করে চলেছে। অন্যদের কাছ থেকে সঠিক ধরনের সহযোগিতা না পাওয়া পর্যন্ত আমাদের এ সময়ে কোনো দেশই এতটা স্বাধীন নয় যে, সে তার স্বার্থ রক্ষায় সর্বোত্তম পদক্ষেপ নিতে সক্ষম হবে। অন্যরাও কোনো দেশকে একলা ছেড়ে যাবে না।

Debapriya.Bhattacharya's picture

মধ্যমেয়াদি সংকটের পথে বাংলাদেশ?

বাংলাদেশের বর্তমান অস্থিতিশীল ও সহিংস রাজনীতি দেশের অর্থনীতিকে ক্রমান্বয়ে দুর্বল করে দিচ্ছে। সারা বিশ্বে বাংলাদেশ যেখানে একটি সম্ভাবনার দেশ হিসেবে পরিচিতি পাচ্ছিল, এখন তা ক্রমেই একটি ঝুঁকিপূর্ণ দেশ হিসেবে পরিগণিত হচ্ছে। দেশের নির্বাচনী অনিশ্চয়তা, রাজনৈতিক সহিংসতা ও সামাজিক অস্থিতিশীলতা এখন যেভাবে চলছে, ২০১৪ সালেও যদি তা অব্যাহত থাকে, তাহলে দেশ একটি মধ্যমেয়াদি অর্থনৈতিক সংকটে নিপতিত হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।

Sohrab.Hassan's picture

গোস্সা করবেন না হানিফ সাহেব

৫ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় একতরফা নির্বাচনের জন্য প্রার্থীরা নির্বাচন কমিশনে তাঁদের সম্পত্তির যে হিসাব দিয়েছেন, তাকে কেউই আসল হিসাব বলে মনে করেন না। সবাই না হলেও অধিকাংশ প্রার্থীই তাঁদের আয় ও সম্পত্তির হিসাব কম দেখিয়েছেন। কত কম দেখিয়েছেন তা পরিমাপের যন্ত্র আমাদের হাতে নেই। তবে বর্তমান আমলে কে কত টাকা বিদেশে পাচার করছেন, তার হিসাব হয়তো পরবর্তী কোনো সরকারের আমলে জানা যাবে।

MasumKabir's picture

কৃত্রিম ঝড়ের কবলে বাংলাদেশ

বাংলার কোমল বুকে আরো একটি ঝড় আসছে ২৯ ডিসেম্বর।একটি ঝড় যখন আসে তখন আমরা আবহাওয়া বার্তার মাধ্যমে অনুধাবন করতে পারি ক্ষয়-ক্ষতির পরিমান।আজ বাংলার আনাচে কানাচে প্রতিটি মানুষের হৃদকম্পন অতি দ্রুত চলছে কি আছে ক্ষতবিক্ষত দেশটির ধর্মপ্রাণ তথা অন্ধ কর্মীবাহিনীসহ সাধারণ মনুষের ভাগ্যে?এ ঝড়টির বিপদ সংকেত কত?

Shafiul Azam Shipon's picture

‘তুমি কে আমি কে বাঙালী বাঙালী’

সাধারণ নিয়মে একটি প্রাণীর জন্ম পরিচয় জেনে থাকি সেই প্রাণীটির জাত বা গোত্র থেকে।সমুদ্রের জলে বাস করে তিমি যেমন একটি প্রাণী ঠিক তেমনি মাটির উপরিভাগে বসবাস রত পিপড়েও একটি প্রাণী।গাছের ডালে পাখি এবং ঘাসের ডগায় ফড়িং এরাও প্রাণী,তবে এদের প্রত্যেকেরই আলাদা গোত্রো বা জাত আছে,আছে স্বতন্ত্র পরিচয়।মানুষের বেলায়ও ঠিক তেমনটি।পৃথিবীতে পাখির যেমন অনেক প্রজাতি আছে তবে তাদের প্রথম পরিচয় পাখি ঠিক তেমনি মানুষের মধ্যে ভিন্ন ভিন্ন জাতি আছে তবে প্রথম পরিচয়ে সে ‘মানুষ’।

নুরুন্নাহার শিরীন's picture

একাত্তুরে জহির রায়হান নির্মিত "স্টপ জেনোসাইড" আজ বিষম মনে পড়ছে

২৪ ডিসেম্বর সন্ধ্যায় টিভিতে প্রচারিত বেগম জিয়া্র সাংবাদিক সন্মেলনে লিখিত বিবৃতি পাঠের চিত্র দেখার পর হতেই অর্বাচীনের মনে জহির রায়হান নির্মিত "স্টপ জেনোসাইড" নামের মেসেজধর্মী শর্ট ফিল্মের অই শিরোনামটি বিষম প্রজোয্য লাগছিলো। ঢাকায় হেফাজতীদের ৫ মে সেই ভয়ংকর "ঢাকা অবরোধ" আমরা যদি না নেহাত ভুলোমন হই, ভোলার কথা না। সেটিও আঠার জোটের সমর্থনে ভয়ংকর এক তান্ডব ছিলো। এবার আবারও আঠার জোট নেত্রীর ঢাকা অভিযাত্রা-র ডাক এবঙ নামখানা ইংরেজীতে "মার্চ ফর ডেমোক্রেসি"!

syed shah salim ahmed's picture

খালেদা জিয়ার প্রেস কনফারেন্স, আনন্দ বাজারের মূল্যায়ন আর মার্চ ফর ডেমোক্রেসি

খালেদা জিয়া যখন প্রেস কনফারেন্স করে তার মার্চ ফর ডেমোক্রেসি ঘোষণা করেন, তার কিছুক্ষণ আগে মার্কিন রাষ্ট্রদূত ড্যান মজীনা ঢাকা টেলিভিশন চ্যানেলের সাংবাদিকদের কাছে স্পষ্টতই বলেছেন, সম্ভবত: দশম নির্বাচন নিয়ে আলোচনা, সংলাপ এখন অনেক দেরী হয়ে গেছে। সংলাপ এবং আলোচনা দশম-একাদশ নিয়ে হতে হবে এবং বিরোধীদলকে রাজনৈতিক সুবিধা দিতে হবে। প্রেসের সামনে মজীনা এই বক্তব্য উপস্থাপনের আগে যোগাযোগ মন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সাথে সাক্ষাত করে একই মনোভাব পেশ করেছেন, ওবায়দুল কাদেরও প্রেসের সামনে সে রকম বক্তব্যই তুলে ধরেছেন।

Masuda.Bhatti's picture

বেগম জিয়াকে নির্বাচনে আনতে না পারার দায় ইইউসহ পশ্চিমা দেশগুলোরও

৫ জানুয়ারি ২০১৪ অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে পর্যবেক্ষক পাঠাবে না ইউরোপীয় ইউনিয়ন, গত পরশু এই ঘোষণা আসার পর আজ কমনওয়েলথও বলেছে, তারা নির্বাচনী পর্যবেক্ষক পাঠাচ্ছে না। ইউরোপীয় ইউনিয়ন ঘোষণায় একথাও বলেছে, তারা মনে করে নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। নির্বাচন হওয়ার আগেই তা সুষ্ঠু হবে কি হবে না তা নিয়ে কথা বলাটা বোধ করি একটু কাঁচা কাজই হলো। কিন্তু গর্হিত কাজ হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়নের সদস্য রাষ্ট্রসমূহের রাষ্ট্রদূতদের ১৬ ডিসেম্বর বাংলাদেশের বিজয় দিবসে জাতীয় স্মৃতিসৌধে সম্মান জানাতে না যাওয়াটা।

M.Shakhawat.Hossain's picture

যে নির্বাচনে সবাই হারবে

বিরোধী জোটের বর্জন আর সহিংস অবরোধের মধ্য দিয়েই সরকারি জোট আগামী ৫ জানুয়ারি নির্বাচন কমিশনের পূর্বঘোষণা অনুযায়ী নির্বাচনের শেষাঙ্ক মঞ্চস্থ করতে চলেছে। মোট ৪০টি নিবন্ধিত দলের মধ্যে ১২টি দল এই নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছে। এই জোটের মধ্যে শাসক দল আওয়ামী লীগ ছাড়া আছে আরেকটি বৃহত্তর দল জাতীয় পার্টি। কিন্তু দলটির মহাডিগবাজি আর বিভাজনের কারণে ক্ষমতাসীন মহলে বড় ধরনের ধাক্কা লেগেছে। জাতীয় পার্টিকে নির্বাচনের প্রক্রিয়ায় রাখতে যেসব কাণ্ড দেশবাসী প্রত্যক্ষ করছে, তাও দেশের ইতিহাসে এক অভূতপূর্ব অধ্যায় হয়ে থাকবে।

Syed.Abul.Maksud's picture

বঙ্গীয় হলফনামা

গণতন্ত্রের সঙ্গে হলফনামার কোনো সম্পর্ক আগে ছিল না। এই শব্দটিই আগে ভোটাররা শোনেননি। কেউ, যদি তিনি রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হন, তাঁর সম্পদ ও অর্থকড়ি মাসে কত গুণ বাড়বে তা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপার। তা জানার অধিকার কারও নেই। বিশেষ করে গরিব ভোটারদের, যাঁদের দুবেলা ভাত বা রুটি জোটে না, তাঁদের জানার প্রয়োজন কী?

Syndicate content