Politics

syed shah salim ahmed's picture

শেখ মুজিব নন, জিয়াই স্বাধীনতার ঘোষক এবং মুজিব অবৈধ প্রধানমন্ত্রীঃ ওয়েস্টমিনিস্টারে তারেক রহমান (ভিডিও সহ)

*শেখ মুজিব কোন সময়ের জন্যেও বাংলাদেশের স্বাধীনতা চাননি-তারেক জিয়া
*ফ্রেঞ্চ টেলিভিশন ফুটেজ দেখিয়ে বলেন, শেখ মুজিব নিজে বলছেন তিনি স্বাধীনতা চাননি, স্বায়ত্তশাসন চান-
*এম এ মুহিতের বাংলাদেশ এমার্জিং অব এ ন্যাশন গ্রন্থে জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণা স্বীকৃত রয়েছে-
*জেনারেল(অব:)শফিউল্লাহর বাংলাদেশ এট ওয়ার গ্রন্থে জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণা বলা আছে-
*ভারত রক্ষক ডোমেইন ও ওয়েবসাইটে জিয়াউর রহমানের স্বাধীনতার ঘোষণা জিয়ার দ্বারা স্বীকৃতি দেয়া আছে-
*আওয়ামীলীগ গণতন্ত্রের ভাষা বুঝেনা
*শেখ হাসিনা মুক্তিযোদ্ধাদের অপমান করেছেন

A.S.Fahim's picture

জামাতের স্বপ্ন কি স্বপ্নদোষ নয়!

৯০ এর পর থেকেই জামাত এককভাবে বাংলাদেশের ক্ষমতায় আসার স্বপ্ন দেখে আসতেছে। সে লক্ষ্যে তারা নিরবিচ্ছিন্ন কাজও করে চলতেছে। তাদের সেই কাজকে অবশ্যই স্বাগত জানাতেই হবে। ভুল হউক আর সঠিক হউক তারা একটা আইডলজী দিতে পেরেছে। সেটা দিয়ে ও পারিপার্শ্বিক সুবিধা দিয়ে তারা তরুণদের আকৃষ্ট করতে পারছে। এই আকৃষ্ট করার গতি কখনও কম আর কখনও বেশী।

syed shah salim ahmed's picture

বিএনপি ও খালেদা জিয়া কি আগামী নির্বাচন থেকে ছিটকে পড়বেন ?

স্বাধীনতা দিবসের অনুষ্ঠানে দেয়া বক্তব্যকে কেন্দ্র করে খালেদা জিয়া, তারেক রহমান এবং শেখ হাসিনা এখন মারমুখী এবং আওয়ামীলীগ ও বিএনপির রাজনীতি উত্তপ্ত বলা যায়। সারা বিশ্বের কূটনীতিক আর দেশী বিদেশী রাজনৈতিক বোদ্ধা আর সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা বার বার যে তাগাদা দিয়ে আসছিলেন সরকার ও বিরোধীদলকে- অর্থবহ নির্বাচনের লক্ষে সংলাপের, আপাতত: কে প্রথম রাষ্ট্রপতি এমন আজগুবি এক অর্থহীন বিতর্কের সূচনা করে বিএনপি ও তারেক রহমান পরিস্থিতিকে অনেকটাই উথলে দিয়েছেন।

muzib's picture

গনতন্ত্রের নতুন ধারাঃ রাহে লিল্লাহ’র ‘সুষ্ঠু নির্বাচন’ –

upojela nirbachon.jpg
হবুচন্দ্র রাজার দেশের প্রজাবৃন্দ,
সবাইকে প্রীতিও শুভেচ্ছা জানাইয়া এই নিবন্ধ শুরু করিলাম।
ব্লগে অনেকদিন অনুপস্থিত থাকিবার পর আবার নতুন কিছু তথ্য লইয়া আপনাদের সমীপে হাজির হইলাম। অতি প্রথমেই মুক্তিযুদ্ধের চেতনা(!) নবায়নে ব্রতী গনতন্ত্রের ‘নব্য সংস্কৃতিকে’ সমৃদ্ধ করিবার জন্য ক্ষমতাসীন রাজন্যবর্গের পক্ষ হইতে আমি অধম দেশবাসীর কাছে কৃতজ্ঞতা জানাইতেছি।

syed shah salim ahmed's picture

পুতিন ফিনল্যান্ড পর্যন্ত রাশিয়ান সাম্রাজ্য বৃদ্ধি করতে চান !

ভ্লাদিমির পুতিনের সব চাইতে ঘনিষ্ঠ এক এডভাইজর আন্ড্রেজ ইলারিনোভ সুইডেনের পত্রিকা সেভেনস্কা ডাগব্ল্যাডেটের সাথে এক সাক্ষাতকারে জানিয়েছেন, তিনি মনে করছেন, “ভ্লাদিমির পুতিন ক্রিমিয়াকে নিজের নিয়ন্ত্রণে নিয়েই রাশিয়ান সাম্রাজ্য বৃদ্ধি করেই ক্ষান্ত হবেননা, বরং তিনি বেলারুশ, বাল্টিক এবং ফিনল্যান্ড পর্যন্ত রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে নিতে চান, যা পুতিন মনে করেন এই রাষ্ট্রসমূহের মালিক রাশিয়া”।

Md. Galib Mehdi Khan's picture

স্বস্তিদায়ক!

Untitled-1-350x217.jpg

খবরটি খুবই ছোট আর খুব একটা গুরুত্বপূর্ণও নয়। তবে অনেক বেশি স্বস্তি দায়ক। আজ থেকে প্রায় মাস তিনেক আগের। গত ৭ ডিসেম্বর, ২০১৩ তারিখে রাজধানীর লালবাগে ককটেল বিস্ফোরণ করতে গিয়ে মোহাম্মদ শামী (৩০) নামে এক ব্যক্তি গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছে। ঠিক একই ভাবে ৭ ডিসেম্বর যাত্রাবাড়ীতে গাড়ী ভাংচুর করতে গিয়ে এক শিবির কর্মী গণধোলাইয়ের স্বীকার হয়েছিল।

A.S.Fahim's picture

হাসিনার হাতে বন্দুক, টার্গেট বিরুধী রক্ত, গণতন্র রক্ষ্যায় বিরুধীদল এর ভুমিকা বিশ্লেষণ

বাংলাদেশের ইতিহাসের সবচেয়ে তীব্র আন্দোলন করে ও ঢাকাকে মাস খানেক বিচ্ছিন্ন করেও বিরুধীদল তাদের আন্দোলনে চূড়ান্ত সফলতায় পৌছতে পারেনি।

স্বাধীন বাংলাদেশের ইতিহাসে বা পাকিস্থান আমলেও এত তীব্র আন্দোলন আর কোন বিরুধীদল গড়ে তুলতে পারেনি (মুক্তিযুদ্ধের কথা আলাদা, সেটি ছিল স্বশস্ত্র বিপ্লব), এটার বিশ্লেষণ একেক মহল একেকভাবে করতেছে। বিএনপি দিয়েই শুরু করি। স্বীকার করা উচিত ৯০ এর এরশাদ বিরুধী আন্দোলনের চেয়েও অনেক অনেক বেশী সক্রিয় হয়েই নেতা কর্মিরা মাঠে নেমেছিল ঢাকা ছাড়া (৯০ এর পূর্বে শুধু ছাত্রদল আন্দোলন শক্তভাবে করত) দেশের সব জায়গায়।

syed shah salim ahmed's picture

লাদেনের মৃত্যুর পরেও বুলেট দিয়ে ঝাজরা করে দেয়া হয়েছিলো- নিউ স্টাডি রিপোর্ট প্রকাশ

আল-কায়দা নেতা বিন লাদেনকে আমেরিকান নেভি সিল যখন গ্রেপ্তার করে, তখন অভিযানে অংশগ্রহণকারী ছয় সদস্যের আর্মি নেভি সিল সদস্যরা লোডেড ম্যাগজিন থেকে উপর্যুপরি লাদেনের বুকে পীঠে গুলি করে। এমনকি লাদেনের মৃত্যুর পরও মেঝেতে পড়ে থাকা মরদেহের উপর নেভির সদস্যরা অতিরিক্ত বুলেট ছুড়ে তাকে ক্ষত বিক্ষত করতে থাকে, যতক্ষণ পর্যন্ত না লাদেনের দেহ নিথর অবস্থায় পড়ে থাকে (কোন রকম নড়া চড়া না করে ) ।

syed shah salim ahmed's picture

গোলাপি আর গোপালীর ট্রেন এখন বদু কাকার রসিকতায় মত্ত!

স্টার টিভির সিনে এওয়ার্ডের অনুষ্ঠান-ম্যাকাও। ঘটনাচক্রে সেখানে মিলে গেলো একজন ইংরেজ, আমেরিকা, জার্মান আর বাংলাদেশের স্মার্ট তরুণীর। একেতো উপচে পড়া ভীড়। ভিড় হওয়ারই কথা, এরকম অনুষ্ঠানের টিকেট পেতে হলে অনেক কাট খড় পুড়িয়ে, অনেক ধর্না দিয়ে তারপর মিলে। টাকা হলেই স্টার টিভির বলিউড আর অস্কার এওয়ার্ডের টিকেট পাওয়া যায়না। লাইন ঘাট ঠিক মতো থাকা চাই। তার উপর বলিউডের দুই নয়, চার চার বাদশা, মোঘল আর সঙ্গে ঐশ্বরিয়া, দীপিকার মতো নায়িকারাতো আছেনই বাড়তি আকর্ষণ হয়ে। অমিতাভ-রেখা, শাহরুখ, সালমান, আমীর কে দেখার জন্য দর্শকদের যেন শিশ আর তালি হৈ হুল্লোড় থামছেইনা। ছবি তোলার সুযোগতো আছেই। কেউ কাউকে ছাড় দিতে নারাজ।

syed shah salim ahmed's picture

কথিত নাইট ক্লাবে তারেক রহমান, সামাজিক নেট ওয়ার্ক আর অনলাইনে প্রচারণা ও আমার কুইক স্লিপ

গত মধ্যরাত থেকে হঠাৎ করে বিভিন্ন সামাজিক নেট ওয়ার্ক আর কয়েকটি অনলাইন নিউজ দৈনিকে তারেক রহমানের কথিত লন্ডনের নাইট ক্লাবে ড্যান্সরত ছবি সহ পোষ্ট করে নানান জনের নানা মন্তব্য, বক্তব্য প্রকাশিত হচ্ছে। জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টালও এই রেসের সাথে তাল মিলিয়ে তাদের লিড নিউজে তারেক রহমানের লন্ডন নাইট ক্লাবের ছবি সহ সংবাদ প্রকাশ করেই শুধু ক্ষান্ত হয়নি, রীতি মতো সময়ে সময়ে আপ-ডেট পর্যন্ত দিয়ে চলেছে। কোন কোন অনলাইন পোর্টাল তারেক রহমানের এই নিউজের ধারাবাহিক সংবাদ চিত্র পরিবেশন করছে।

Syndicate content