General

muzib's picture

বাংলা-লঙ্কার রাবণদের ইতিকথাঃ

সভ্য স্বাধীন দেশে মত প্রকাশের স্বাধীনতা সবারই আছে। বেশীরভাগ মানুষের মতামতই নির্ভর করে ব্যক্তি মানুষের নিজস্ব জ্ঞান মেধা রুচি শিক্ষা অভিজ্ঞতা ও দর্শণের ভিত্তিতে। কেউ আবার দর্শণের কাছে বেশী মাত্রায় পরাভূত। ব্যক্তির নিরপেক্ষ জ্ঞান যখন অনেকাংশেই লোপ পায় তখনই তার চিন্তা চেতনা একপেশে হতে বাধ্য। আর তখনই হয়তো একজনকে একটা বিশেষ ঘরাণার মানুষ বলে ভাবা হয়ে থাকে। একজনের চিন্তা চেতনা বা মতামত অভিব্যক্তি যে সবার কাছে সমানভাবে সমাদৃত হবে তেমন কোন কথা নেই। তাই বলে তার চেতনা বা মতামতকে অবজ্ঞা করাও সুস্থ্যতার পরিচায়ক নয়?

নুরুন্নাহার শিরীন's picture

আজ আবার মনে পড়লো "পঙক্তিঘোরের খোঁজে" শিরোনামের লেখা ...

অনেক বছর আগের কথা। তখন "আজকের কাগজ" নামের সাহিত্য পাতায় লিখবার একটা আমন্ত্রণ পাঠায় সম্পাদক শামীম রেজা। বিষয়বস্তু নিজের পঙক্তি রচনার মুহূর্ত নিয়ে লিখতে হবে। আমার তখন হঠাত মনে আসলো ১৯৯২-র ডিসেম্বরের কথা। জীবনে প্রথমবার স্বামীর সঙ্গে ভারতে গেছি। তখন সেখানে বাবরী মসজিদ ভাঙাভাঙির মুহূর্তটিতে আমরা "রাজধানী এক্সপ্রেস"-এ আজমীর শরীফ, জয়পুর, আগ্রা ও দিল্লী বেড়িয়ে কোলকাতা ফিরছিলাম। সেই মুহূর্তটির কথা লিখতে বসে "পঙক্তিঘোরের খোঁজে"-র শিরোনামে একটা লেখা জন্মালো। আজ প্রিয়ব্লগের পাতায় তারই কপি শেয়ার করবার তাগিদ অনুভব করছি। হয়তো পাঠকদের ভালো লাগতে পারে ভেবেই -

syed shah salim ahmed's picture

বিবিসি প্যানোরামা আফটার ম্যাথঃ লুতফুর রহমানের অফিসে এরিক পিকলের ফ্রড টিম ইনভেস্টিগেশন শুরু-০২

টাওয়ার হ্যামলেটস বারার মেয়র লুতফুর রহমানের অফিসে সবচাইতে বড় ধরনের ফ্রড ও আর্থিক মিস-ম্যানেজম্যান্টের তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

জানা যায়, শুক্রবার সকাল ৮টায় কমিউনিটি সেক্রেটারি এরিক পিকলের পাঠানো ফ্রড ইনভেস্টিগেশন টিম মেয়রের মালব্যারি প্যালেসের হেড কোয়ার্টারে এসে তদন্ত শুরু করার জন্য অফিসের সকল ফাইল ও বাক্সগুলো এক জায়গায় জড়ো করা শুরু করে।

syed shah salim ahmed's picture

লন্ডনে বিবিসি প্যানোরামায় মেয়র লুতফুর রহমানের বিরুদ্ধে বিস্তর অভিযোগঃমেয়র বললেন সব ভূয়া, ইসলামের বিরুদ্ধে বর্ণবাদ উস্কে দিবে

ব্রিটেনের টাওয়ার হ্যামলেটস বারার প্রথম নির্বাচিত বাংলাদেশী মেয়র লুতফুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্রিটেনের টেলিভিশন বিবিসির বিখ্যাত প্যানোরোমা অনুষ্ঠানে গত সোমবার (পহেলা এপ্রিল) রাতে প্রচারিত অনুষ্ঠানে ব্যাপক অনিয়ম, ক্ষমতার অপব্যবহার করে ব্রিটিশ জনগণের ট্যাক্সের পয়সায় কাউন্সিলের তহবিল নিজের প্রভাব প্রতিপত্তি খাটিয়ে নিজের বলয়ের ও নিজ গ্রুপের বাংলাদেশীদের অতিরিক্ত বরাদ্ধ, ফেইথ গ্র্যান্টের নামে মসজিদের ব্যাপক হারে অনুদান,গ্র্যান্ট প্রদান, ব্রিটেনের বাংলাদেশী কমিউনিটি টেলিভিশন চ্যানেল এস-কে নিজের প্রচার উইং হিসেবে ব্যবহার এবং সেজন্যে এই চ্যানেলটিকে এড সহ অন্যান্য অনুদান প্রদান, এর সাংবাদিক মোহাম্মদ যুবায়েরকে নিজের মিডিয়া প্রচার এডভাইজর হিসেবে টাওয়ার হ্যামলেটসের ফান্ড থেকে ৫০ হাজার পাউন্ড খরচ, টাওয়ার হ্যামলেটস বারার কাউন্সিল সাইন বিলবোর্ডে ব্যতিক্রম ধর্মী ভাবে কাউন্সিল লগোর সাথে নিজের ছবি সম্বলিত সেলফি প্রচার, কাউন্সিলের টাকায় পরিচালিত ইষ্ট এন্ড লাইফ ফ্রি পত্রিকাতে সর্বাধিক এবং অর্ধেকেরও বেশী স্থান জুড়ে নিজের কাজের স্বীকৃতি ও পারফর্মেন্স তুলে ধরে এক ধরনের প্রচারণা ও ব্যবহারের অভিযোগ সহ আরো বেশ কিছু অভিযোগের ফিরিস্তি তুলে ধরা হয়।

syed shah salim ahmed's picture

পুতিন তিন থেকে পাঁচ দিনের মধ্যেই ইউক্রেন ইনভেইড করতে পারেনঃন্যাটো কমান্ডার(ভিডিও)

রাশিয়া বর্তমানে ইউক্রেন বর্ডারে সবধরনের ধরনের সৈন্য সমাবেশ করে ফেলেছে, যাতে ন্যাটোর সুপ্রিম কমান্ডারের ধারণা রাশিয়া খুব কম সময়ের মধ্যে, অর্থাৎ তার মতে তিন থেকে পাঁচ দিনের মধ্যে ইউক্রেন দখলে নিতে সক্ষম এবং তা করতে পারে বলে তিনি মনে করছেন।

ইউরোপে ন্যাটো বাহিনীর ও যুক্তরাষ্ট্রের বিমান বাহিনীর প্রধান ফিলিপ ব্রিডলোভ বলেন, “বর্তমান অবস্থা খুবই নাজুক এবং বিপদজনক”।

ভানু ভাস্কর's picture

দারিদ্র, জাদুঘরের অন্যতম আকর্ষনীয় একটি মোমের মূর্তি

“এ দেশের আছেটা কি? “। এটা শান্তিতে নোবেল পুরস্কার পাওয়া তথাকথিত শান্তিকামী ও শান্তি প্রতিষ্ঠায় অবদান রাখা একজন প্রজ্ঞাবান মানুষের তার দেশ সম্বন্ধে করা উক্তি। সে দেশটির বয়স তেতাল্লিশ বছর। ২০০ বছরের সম্রাজ্যবাদী শক্তির শাসন-ত্রাসন ও শোষনে নাকাল একটি ভূখন্ডের থাকতে পারে কি সে হয়ত আমরা জানি। দারিদ্র-দুর্ভিক্ষ, বন্যা-খরা, ঘূর্ণিঝড়-জলোচ্ছ্বাস কবলিত সে ভূখন্ডে ঔপনেবেশিক শক্তিগুলো হাওয়া খেতে এখানে আসেনি সেও হয়ত আমরা যারা দেশকে ভালবাসি তারা শুধু নয়, বিবেকবান মানুষ মাত্রই তা উপলব্ধি করতে পারবেন। ব্যাবসায়ীরা দুনিয়ার সবকিছুকেই ব্যবসার দৃষ্টিতে অর্থাৎ লাভালাভির ক্ষেত্রে বিচার করতে চায়।

নুরুন্নাহার শিরীন's picture

অর্বাচীনের দিবসরজনী

অর্বাচীন অনেক দিন লিখিনি প্রিয়ব্লগে। চিকিতসার কারণে অনেক দিন দেশের বাইরে ছিলাম। ফিরে এসেছি এবার ডাক্তার-এর প্রেসক্রাইব করা প্রত্যেক সপ্তাহে একটা করে ইনজেকশনের বাক্স সমেত। ব্যাংককে একটা পুশ করেই দেয়া হয়েছে। তো, এইসব ঝক্কির মাঝে কাটছে দিবসরজনী। তাই বলে কি কাব্য বাতিক কমে? কমেনি। উপরন্তু বেড়েছে। প্রায় বুড়োর দিকে ধাবিত বলে কখন কি হয় জীবন ভাইয়ের সেই ভাবনাজাত চিন্তাজাল কথাজালেই বেঁধে রাখার প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছি। অবকাশের প্রিয় বলতে এই একটা মাত্র কাজেই সময় কাটাই। অনেকটা নন্দলালের দশা আর কি।

syed shah salim ahmed's picture

রাশিয়া ইজ এ রিজিওনাল পাওয়ার বাট ইউ এস ইজ এ মোস্ট পাওয়ার ফুল ইন দ্য ওয়ার্ল্ড- বারাক ওবামা

ইউ এস প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা আজ জি-৭ সামিটে বক্তৃতা করার সময় রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনকে সতর্ক করে দিয়ে আহ্বান জানিয়েছেন, ইউক্রেন থেকে সৈন্য প্রত্যাহার করে চলে যেতে, নতুবা আরো কঠিন সেংসনের ফেইস করতে হবে। রাশিয়াকে রিজিওনাল পাওয়ার হিসেবে উল্লেখ করে ওবামা বলেছেন, ইউ এস ও তার এলায়েন্সদের সাথে কম্পিট করতে রাশিয়াকে আরো কঠিন ষ্ট্র্যাগলের সম্মুখীন হতে হবে।

syed shah salim ahmed's picture

ব্রিটেন ও সৌদি আরবের দুটি ভিন্ন খবর

সৌদি আরবের ১০ জন ফ্যাশন ক্লথ ডিজাইনাররা একত্রিত হয়ে ফ্যাশনের উপর এক একাডেমী খোলার কথা জানালেন সৌদি গ্যাজেটকে। তারা বলছেন, সৌদি আরব প্রতি বছর ১০ বিলিয়ন সৌদি রিয়াল খরচ করে তাকে বাইরে থেকে ডিজাইনার ক্লথ আমদানির জন্যে। অথচ নিজ দেশের ডিজাইনাররা একাডেমী খোলার মধ্য দিয়ে যথাযথ ট্রেনিং এর মাধ্যমে ফ্যাশন ডিজাইনের আধুনিক মান সম্মত কাপড় নিজ দেশেই প্রস্তুত করতে সক্ষম, দেশের এই বিলিয়ন ডলার রিয়ালেরও সাশ্রয়ী করতে সক্ষম। আর এরকম লক্ষ নিয়ে ডিজাইনের উপর প্রশিক্ষিত ১০ জন নারী মিলে একটি একাডেমী খুলে সেখান থেকে নিজ দেশে ম্যানুফাকচারিং করারও ঘোষণা করেছেন।

syed shah salim ahmed's picture

এবার ব্রিটেন প্রবাসীদের স্বাক্ষর অভিযানের ঘোষণাঃরানা প্লাজার ক্ষতিগ্রস্তদের সাহায্যার্থে

ঢাকা সাভারে গত বছর রানা প্লাজা ধ্বসে ১,১০০ শ্রমিক কর্মচারীদের কর্মরত অবস্থায় নিহত কিংবা ভবনের নীচে আটকা পড়ে মৃত্যুবরণ করার ইতিহাসের এই নির্মম ট্র্যাজেডি বিশ্ব ইতিহাসে এমন অমানবিক ঘটনার অবতারণা খুব সামান্যই দেখা মিলে।এ যেন এক দুর্ঘটনা কিংবা নিছক কোন ট্র্যাজেডি নয়, বরং বলা যায় এক ধরনের অতি লোভী মালিক, আর আইনের রক্ষকদের তদারকি ও খামখেয়ালির এক অনিবার্য ও নির্মম বলির শিকার হয়েছিলেন সেদিনের বিল্ডিং ধ্বসে নিহত হাজার শ্রমিক আর আহত হয়েছেন আরো অনেকেই, যারা এখনো পঙ্গুত্ব বরণ করে নিদারুণ অমানবিক আর অসহায় অবস্থায় দিন যাপন করছেন।

Syndicate content