Environment

পানিতে মানবাধিকার প্রতিষ্ঠা

ভেবে দেখেন তো প্রতিদিন কত পরিমাণ পানি আপনি অপচয় করেন। আপনার পরিবারের সদস্য যারা, কী পরিমাণ পানি অপচয় করছেন। আমরা পানির অপচয় যদি রুখতে না পারি, এই মূল্যবান পানি একসময় চরম রুষ্ট হয়ে আমাদের থেকে নিজেকে প্রত্যাহার করে নেবে, দেখে নেবেন।

আপনার উঁচু তলার ফ্ল্যাট থেকে নীচের অসহায় মানুষের দিকে ফিরে তাকালে আপনি নিশ্চয় দেখবেন পানি না পাওয়ার কী নিদারুণ কষ্টে তারা ভুগছে। এটাই সত্যি মুষ্টিমেয় মানুষ ছাড়া আমরা সকলে পানির যথেচ্ছাচার ব্যবহার করি। ইস্ পানি না পাওয়ার যন্ত্রণা যদি বুঝতাম!

ভানু ভাস্কর's picture

মাইক সংস্কৃতিঃ ভ্রুক্ষেপহীন গোঁড়ামী সম্বন্ধীয় ক্যাঁচাল

মসজিদে নামাজ চলছে। ধর্মপ্রাণ মুসলমানের অখন্ড মনযোগের এই প্রার্থনা সভা হতে মনযোগ বিনষ্ট হয়ে গেল। সর্বশক্তিমান আল্লাহকে স্মরনে ঘটল ব্যাঘাত। বাইরে মাইকের সুতীব্র আওয়াজ; ঘোষিত হচ্ছেঃ হজরত অমুক, যিনি জাহানের বিশিষ্ট ইসলামী চিন্তাবিদ; নাম জানা, না জানা অনেক অনেক টাইটেলের পিন্ডি চটকিয়ে আমাদের মাঝে হাজির হবার খায়েশ করেছেন, চেঁচাবেন বলে। চেঁচাবার সে অনুষ্ঠানের নাম ওয়াজ।

Waset Shahin's picture

দেশের পানি সম্পদ রক্ষায় জোর প্রচেষ্টা প্রয়োজন

বাংলাদেশ ছোট দেশ। তবে জনসংখ্যা বিশাল। লোকে লোকারণ্য। মানব সম্পদের মত পানি সম্পদেও এদেশ সমৃদ্ধ। ছোট বড় নদ নদীর সংখ্যা আটশোটি। এদেশকে বলা হয় নদীমাতৃক দেশ। তবে হালে ঢাকা সহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে বিশুদ্ধ পানির বেশ অভাব দেখা যাচ্ছে। এর মূল কারন নদী, জলাশয় ও ভূগর্ভস্থ পানির দূষন। অনেক গ্রামাঞ্চলে ভূগর্ভস্থ পানিতে আর্সেনিকের প্রকোপ দেখা দিয়েছে। ফলে এই পানি হয়ে পড়ছে পানের অযোগ্য।

WatchDog's picture

ওয়াস্তাগফেরুল্লাহ বিন মহম্মদ জাফরুল্লাহ ও কতিপয় চেতনা ব্যবসায়ী...WD

গই গেরামে একখান মূল্যবান কতা মুখে মুখে ঘুইরা বেড়ায়। হেরা কয়, যেই গেরামে যত বেশী মসজিদ হেই গেরামে তত বেশি পাপ। আমি কই, ওয়াসতাগফেরুল্লাহ বিন মোহম্মদ জাফরুল্লাহ, এইডা তুমি কি কইলা? হেয় কয়, পাপের উপর রড সিমেন্ট লাগাইতে মসজিদ ভেরি এপেকটিব। মামা, চুরি কইরা দুনিয়া গাং করেন, মাগর হেই চুরির মাল দিয়া আপনে যদি মোক্কা-মদিনায় নবীজির মাজার জেয়ারত করেন এবং নিজ মায়ের নামে গেরামে একখান আলীশান মজিদ বানান (বাইচ্চা থাকতে মায়েরে কিলাইছেন, গুতাইছেন, হক মারছেন তা হিসাবে আইবোনা) খেলা এক্কেরে ফাইনাল। কোয়াটার আর সেমি খেলার পিলার পাইবেন না।

WatchDog's picture

খালেদা জিয়ার জন্মদিন ও প্রধানমন্ত্রীর রাজনৈতিক ব্যবসা...WD

 photo 19_zpsd5cc73bb.jpg ছোটবেলায় মার মুখে শুনেছিলাম গল্পটা। রাজ্যের একমাত্র রাজকুমারীকে অপহরণ করে নেয় কোন এক দৈত্য। উদ্ধারের জন্য ভিন দেশের এক রাজকুমার উন্মাদের মত ছুটতে থাকে দিগ্বিদিক। বন বাদর, নদী নালা, পাহাড় পর্বত পেরিয়ে শেষ পর্যন্ত খুঁজে পায় দৈত্যের ঠিকানা।

Waset Shahin's picture

ঢাকার যানজট নিরসনে সাবওয়ে প্রয়োজন

ঢাকা বিশ্বের সর্বাধিক ঘনবসতীপূ্র্ণ মেগাসিটি। লোক সংখ্যা দশ মিলিয়ন অথবা জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে দু হাজার- এর যে কোন একটি বৈশিষ্ট থাকলেই সেই সিটিকে মেগা সিটি বলে ।এক্ষেত্রে ঢাকা দুটো বৈশিষ্টেরই অধিকারী। এতে বসবাসকারী জনসংখ্যা ষোল মিলিয়ন, জনসংখ্যার ঘনত্ব প্রতি বর্গ কিলোমিটারে চল্লিশ হাজার। বিপরীতে আয়তন খুবই কম, মাত্র তিনশত ষাট বর্গকিলোমিটার। ফলে ঢাকায় নানাবিধ সমস্যা প্রকট ভাবে বিদ্যমান। বাসস্থান, শিক্ষা, স্বাস্থ্য, যাতায়াত সব কিছুরই হযবরল অবস্থা। বিশেষতঃ যাতায়াত ব্যবস্থার অবস্থা নিতান্তই করুন। নিত্য দুঃসহ যানজটে রাজধানীবাসীর নাভিশ্বাস ওঠে। প্রচুর কর্ম ঘন্টা বিনাশ হয় পথ পারি দিতে। অথচ দেশের সকল অর্থনৈতিক কর্ম কান্ডের কেন্দ্রবিন্দুই রাজধানী ঢাকা।

WatchDog's picture

দাসত্বের ১৫ কোটি ও একজন আদুরী...WD

 photo 12_zpsdcc87593.jpg কিবোর্ডে হাত দিয়ে ঠায় হয়ে বসে থাকি। ভাবি কোথা হতে শুরু করা যায়। পত্রিকায় আসা ছবি ও লেখা গুলো বার বার পড়ি। হিমাগারে সংরক্ষিত ইলিশের মত শক্ত হয়ে আসে হাত-পা।

Waset Shahin's picture

ঢাকার চারপাশের নদীগুলো রক্ষা করতে হবে

ন্যাশনাল জিওগ্রাফিক চ্যানেলে মাঝেমধ্যে এমন দৃশ্য দেখা যায়, একপাল বাঘ মিলে ঘিরে ধরেছে একটি মহিষকে। প্রচ- শক্তিশালী মহিষটি শেষে এলিয়ে পড়ে, হিংস্র বাঘগুলো ছিন্নভিন্ন করে ফেলে ওটার শরীর। ঢাকার চারপাশের নদীগুলো বিশেষত বুড়িগঙ্গার অবস্থা সেই অসহায় মহিষটির মতো। সাঁড়াশি আক্রমণে সে প্রায় পর্যুদস্ত। এর প্রাণ যায় যায় দশা। বুড়িগঙ্গা যদি হারায়, ঢাকা হারাবে বাসযোগ্যতা। এটি পরিত্যক্ত নগরী হওয়ার অবস্থায় পেঁৗছে যাবে হয়তো। নিশ্চয়ই আমরা কেউ তা চাই না। আমরা চাই বুড়িগঙ্গা বেঁচে থাকুক। প্রিয় নগরী ঢাকা থাকুক বাসযোগ্য। বুড়িগঙ্গা ছাড়াও ঢাকার চারপাশ ঘিরে বয়ে চলা অন্য তিনটি নদী অর্থাৎ শীতলক্ষ্যা, তুরাগ ও বালুর অবস্থাও সঙ্গিন। নদীগুলো দূষণের মূল কারণ এসবের বুকে অশোধিত বর্জ্য-পানি নিক্ষেপ। মহানগরীতে প্রতিদিন প্রায় ২০০ কোটি লিটার ওয়েস্ট ওয়াটার উৎপন্ন হয়।

Waset Shahin's picture

ডিএনডি এলাকার জলাবদ্ধতার কারন ও প্রতিকার

১৯৫৯ সালে পূর্ব পাকিস্তান পানি ও বিদ্যূৎ উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ গঠিত হওয়ার পর ঢাকা নারায়নগঞ্জ ডেমরা সেচ প্রকল্পটিই পাইলট প্রকল্প হিসেবে বাস্তবায়িত হয় । ১৯৬১ সালে প্রকল্পটি অনুমোদিত হয় এবং এতে ব্যয় হয় ৮ লক্ষ ডলার । প্রায় ১৫০০০ একর জমিকে সেচ ও ড্রেনেজের আওতায় আনার লক্ষ্য নিয়ে বাস্তবায়িত হয় প্রকল্পটি । শীতলক্ষা নদীর পানি দিয়ে খরা মৌসুমে জল সেচ ও বর্ষা মৌসুমে ভেতরের পানি পাম্প করে প্রকল্প এলাকাকে বন্যামুক্ত রাখা ছিল প্রকল্পের উদ্দেশ্য। প্রকল্পের মূল উপাংগের মাঝে ছিল একটি বৃহৎ ক্যানাল, একটি পাম্পিং স্টেশন ও সাব-স্টেশন, ডিস্ট্রিবিউশন ক্যানাল সমূহ, ড্রেনেজ চ্যানেল এবং বন্যা নিয়ন্ত্রনের উদ্দেশ্যে ফ্লাড এমবেংক্ম্যান্ট ও ব্রিজ-কালভার্টের স্লুইচ গেট সমূহ । এটি ছিল পানি উন্নয়ন বোর্ডের একটি অত্যন্ত সফল প্রকল্প ।

Waset Shahin's picture

ঢাকার যানজট ও জনজট নিরসনে যা দরকার

২০০৭ সালের জুলাইয়ে জাপান সফরে গিয়ে বেশ কিছু বাস্তব অভিজ্ঞতা হল । জাপানের রাজধানী টোকিও বিশ্বের সর্ববৃহৎ মেগাসিটি । এর জনসংখ্যা তি্ন কোটিরও বেশি । অত্যন্ত সুশৃ্ংখল ও আধুনিক একটি নগরী । কোথাও কোন বিশৃংখলা নেই । এতযে লোক বাস করে বোঝা যায় না । বাংলাদেশের সাথে জাপানের মত দেশের অর্থ ও প্রযুক্তির দিক দিয়ে তুলনা চলেনা মানছি, কিন্তু সুশৃংখল স্বভাবের জন্যতো আর পয়সা লাগেনা । তাই মনের গভীরে একধরনের তুলনা আর দীর্ঘশ্বাস চলেই আসে । শিঞ্জুকো টোকিওর ব্যস্ত বানিজ্যিক এলাকা ।এর সাবওয়ে স্টেশনে অনেকগুলো স্তর । লক্ষ লক্ষ লোকের সমাগম । এলিভেটর ও প্লাটফর্মগুলো জনারন্য । কিন্তু ঠেলা ধাক্কা, বেহুদা চেঁচামেচি নেই । টোকিও ছাড়াও ওসাকা, হিমেজি, ফুকুয়াকা, টয়োটা সিটিতে গেছি।

Syndicate content